এক আউটে স্টার্কের রেকর্ড, পেইনের বিশ্বরেকর্ড

পঞ্চম উইকেট জুটিতে বেশ ভালোভাবেই এগুচ্ছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানে ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রিশাভ পান্ত। দুজন মিলে ১৫.২ ওভারে যোগ করে ফেলেছিলেন ৫৭ রান। অস্ট্রেলিয়ার করা ১৯৫ রানের জবাবে ৪ উইকেটেই ১৭৩ রান করে ফেলেছিল ভারত।

মিচেল স্টার্কের ইনিংসের ৬০তম ওভারের প্রথম বলে পয়েন্ট অঞ্চল দিয়ে চার মারতে গিয়ে উইকেটের পেছনে টিম পেইনের হাতে ধরা পড়েন ৪০ বলে ২৯ রান পান্ত। এ উইকেটের মাধ্যমে দুটি ভিন্ন ভিন্ন রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন বাঁহাতি পেসার স্টার্ক ও উইকেটরক্ষক পেইন।

পান্তকে কট বিহাইন্ড করে নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৫০তম উইকেটটি নিলেন স্টার্ক। অস্ট্রেলিয়ার নবম বোলার হিসেবে এ মাইলফলকে পৌঁছেছেন তিনি। তবে গড়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে দ্রুততম বোলার হিসেবে ২৫০ উইকেট নেয়ার রেকর্ড। তিনি ২৫০ উইকেট নিতে করেছেন ১১ হাজার ৯৭৬টি ডেলিভারি।

এতদিন ধরে এ রেকর্ডটি ছিল মিচেল জনসনের দখলে। তিনি ২৫০ উইকেটের মাইলফলকে পৌঁছান ১২ হাজার ৫৭৮ ডেলিভারিতে। এছাড়া ডেনিস লিলি ১২৭২২, ব্রেট লি ১২৯৬১ এবং গ্লেন ম্যাকগ্রা এই মাইলফলকে যেতে করেন ১৩০১৫টি ডেলিভারি।

অন্যদিকে পেইন গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। উইকেটের পেছনে নেয়া পান্তের ক্যাচটি পেইনের টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৫০তম ডিসমিসাল। ক্যারিয়ারের মাত্র ৩৩তম টেস্টে ১৫০ ডিসমিসাল পূরণ করে ফেলেছেন তিনি। এতদিন ধরে রেকর্ডটি ছিল কুইন্টন ডি ককের দখলে। তিনি ৩৪ টেস্টে পূরণ করেছিলেন ১৫০ ডিসমিসাল।

২০১০ সালে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হলেও, লম্বা সময় দলের বাইরে থাকায় ১০ বছরে মাত্র ৩৩টি টেস্ট খেলা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান অধিনায়কের। এই দীর্ঘ তবে অল্প ম্যাচের ক্যারিয়ারে এপর্যন্ত ১৪৩টি ক্যাচ ও ৭টি স্ট্যাম্পিং করেছেন ৩৬ বছর বয়সী পেইন।