নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করবে ইসি

ভোটের মাঠে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে গালি হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ফরিদপুর আসনের সংসদ সদস্য মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সনের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে নির্বাচন কমিশন

বুধবার ঢাকার নির্বাচন ভবনে আইন-শৃঙ্খলা বৈঠক শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

তিনি বলেন, “আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে, মাননীয় সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী সাহেবের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। হয়ত আজকের মধ্যে, বা কালকের মধ্যে থানায় মামলা রুজু হয়ে যাবে। বিধি বহির্ভূত আচরণ করার জন্য আমাদের হাতে যে আলামত আছে, তা যথেষ্ট। সেজন্য মামলা হবে।”

মামলা হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট থানা তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে বলে মন্তব্য করেন সিইসি।

তিনি বলেন, সাংসদ নিক্সন আচরণ বিধির বাইরে আর কোনো নির্বাচনী অপরাধ করেছেন কিনা, তা তদন্ত করে দেখতে একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি কমিটি করবে ইসি।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা প্রশাসক ও নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করা কর্মকর্তাদের হুমকি-ধমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠে এ সাংসদের বিরুদ্ধে।

এরপরই সিইসি এ সাংসদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন মঙ্গলবার। নূরুল হুদা বলেছিলেন, “এখন আমরা দেখি, যদি মামলা করার বিধান থাকে মামলাই করবো। আমরা এখনও সিদ্ধান্ত নিইনি।”

গত শনিবার ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন হয়, যাতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কাওসার হোসেন নৌকা প্রতীক নিয়ে ১৬ হাজার ৫২৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কে এম ওবায়দুল বারী পান ৫ হাজার ৩৪৬ ভোট।

ভোটের পর সেদিন সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এক সমাবেশে স্বতন্ত্র সাংসদ নিক্সন চৌধুরী বলেন, “প্রশাসনের মধ্যে লুকাইয়া থাকা ওই জেলা প্রশাসক এ নির্বাচনে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে নৌকার কর্মীদের অ্যারেস্ট করছে, পিটাইছে ওই জেলা প্রশাসক।”

এ বিষয়ে ফরিদপুরের ডিসির দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়টি তিনি তার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *